ঈশ্বর আমাদের করোনা প্রাদুর্ভাব হতে দ্রুত রক্ষা করবেন : এমপি মনোরঞ্জন শীল গোপাল

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ফজিবর রহমান বাবু : ঐতিহাসিক শ্রীশ্রী কান্তজীউ মন্দিরে শতশত বছর ধরে হয়ে আসা শ্রীশ্রী কান্তজীউ’র যুগল বিগ্রহের স্নান যাত্রা উৎসব যথাযথ মর্যাদা ও ধর্মীয় অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে পালিত হয়েছে। মন্দির অঙ্গনে  স্নানযাত্রা উপলক্ষ্যে প্রতিবছর বিপুল সংখ্যক ভক্তবৃন্দের সমাগম ও মেলা অনুষ্ঠিত হলেও এবছর প্রানঘাতী করোনাভাইরাসের কারণে ভক্ত-পুণ্যার্থী জমায়েত ও মেলার আয়োজন করা হয়নি। ভক্তবৃন্দের সুরক্ষায় শ্রী শ্রী কান্তজীউ যুগল বিগ্রহ এর স্নান যাত্রা উৎসব স্বাস্থ্যবিধি, সামাজিক ও শারীরিক দুরত্ব বজায় রেখে শুধুমাত্র ধর্মীয় নিয়ম নিষ্ঠা রক্ষার্থেই সীমিত আয়োজনের মধ্য দিয়ে পালিত হয়।
৫ জুন ২০২০ শুক্রবার দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলায় ঐতিহাসিক শ্রীশ্রী কান্তজীউ মন্দিরে সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত বৈদিক মন্ত্র উচ্চারনের মধ্য দিয়ে স্নানযাত্রা উৎসব চলে। এসময় উপস্থিত ছিলেন দিনাজপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল ও তার সহধর্মীনি গীতা রাণী শীল, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মনিরুল হাসান, ওসি মনোজ কুমার, দৈনিক আজকের দেশবার্তা’র সম্পাদক চিত্ত ঘোষসহ সীমিত ভক্তবৃন্দ উপস্থিত থেকে স্নানযাত্রা উপভোগ করেন।
মন্দিরের পুরোহিত পুলিন চক্রবর্তী জানান, বাংলা জ্যৈষ্ঠ্য মাসের পুর্ণিমা তিথিতে শ্রীশ্রী কান্তজীউ যুগল বিগ্রহের স্নানযাত্রা   উৎসব পালন করা হয়ে থাকে। এসময় সাত ঘাট হতে সংগ্রহ করা জল শুদ্ধিকরণ করে ১০৮ টি মাটির কলসে করে সেই পূণ্য জল দিয়ে যুগল বিগ্রহকে স্নান করানো হয়। পাশাপাশি বাংলাদেশসহ বিশ্ববাসী করোনা সংক্রমন হতে মুক্তি পাওয়ার লক্ষ্যে দেবতার কাছে বিশেষ প্রার্থনা করা হয়।
এসময় উপস্থিত মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি বলেন, বাংলাদেশসহ বিশ্বব্যাপী মহামারি করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) এর প্রাণঘাতী সংক্রমণ রোধে সরকার ঘোষিত স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন এবং জনস্বাস্থ্য সুরক্ষায় এ বছর স্নানযাত্রা উৎসবের আয়োজন সীমিত করা হয়েছে। এবার মন্দিরে আসা ভক্তবৃদের প্রার্থনা ছিল যাতে খুব দ্রæত যাতে বাংলাদেশসহ বিশ্ববাসী এই প্রাণঘাতী করোনার প্রাদুর্ভাব হতে মুক্তিলাভ করে। ঈশ্বর আমাদের করোনা প্রাদুর্ভাব হতে দ্রুত  রক্ষা করবেন।
এবছর সন্মানিত ভক্তগন বিশেষ ভাবে অনুরোধ করা হচ্ছে যে বর্তমান অবস্থা প্রেক্ষিতে মহামারি করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) চলাকালীন সময়ে ঐতিহাসিক শ্রী শ্রী কান্তজীউ মন্দিরে কমিটির পুর্ব সিদ্ধান্ত অনুযায়ী কক্তদের দেয়া কোন ভোগ গ্রহন করা হয়নি। এছাড়া স্নান যাত্রা উৎসব আয়োজন সংকোচিত হওয়ায় কমিটি বিশেষ ভাবে দুঃখ প্রকাশ করেছে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*