করোনা মোকাবেলায় শেখ হাসিনার প্রশংসায় মর্যাদাপূর্ণ মার্কিন ম্যাগাজিন ফোর্বস

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

পজিটিভ বিডি নিউজ ২৪ ডটকম (গন মাধ্যম ডেক্স): মর্যাদাপূর্ণ ম্যাগাজিন যুক্তরাষ্ট্রের ফোর্বস প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভূয়সী প্রশংসা করেছে এবং বাংলাদেশে মহামারী করোনাভাইরাস মোকাবেলায় তাঁর আন্তরিক প্রচেষ্টার জন্য তাঁকে সফল নারী নেতৃত্বের তালিকায় স্থান দিয়েছে
ফোর্বস ম্যাগাজিনের কন্ট্রিবিউটর আভিভাহ উইটেনবাগকক্স গত ২২ এপ্রিল প্রকাশিত সংখ্যায় এক নিবন্ধে লিখেছেন, ‘প্রায় ১৬ কোটিরও বেশি মানুষের দেশ বাংলাদেশের নেতৃত্ব দিচ্ছেন শেখ হাসিনা যেখানে দুর্যোগ কোন নতুন ঘটনা নয় আর এই করোনা মোকাবেলার ক্ষেত্রে দ্রুত সিদ্ধান্ত নিতে ভুল করেননি তিনি তাঁর এই তড়িৎ সিদ্ধান্তের প্রশংসা করে ওয়ার্ল্ড ইকোনোমিক ফোরাম বিষয়টিকেপ্রশংসনীয়বলে উল্লেখ করেছে
আভিভাহ তার লেখায় (আরো) নারী নেতৃত্ব করোনাভাইরাস সংকট মোকাবেলা করছেনশীর্ষক নিবন্ধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সহ বিশ্বের জন নারী নেতৃত্বের করোনাভাইরাস মোকাবেলায় গৃহিত পদক্ষেপের প্রশংসা করে বলেছেন, এই আট জন নেতারই তাঁদের উদ্যোগের স্বীকৃতি পাওয়া উচিত
বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর পাশাপাশি এই তালিকায় আরো রয়েছেন সিঙ্গাপুরের প্রেসিডেন্ট হালিমাহ ইয়াকব, বলিভিয়ার অন্তর্বর্তীকালিন প্রেসিডেন্ট জেনিন অ্যানেজ, নেপালের প্রেসিডেন্ট বিদ্যা দেবী ভান্ডরী, ইথিওপিয়ার প্রেসিডেন্ট সাহলেওর্ক জেওডে, জর্জিয়ার প্রেসিডেন্ট সালোমে জুরাবিচভিলি, নামিবিয়ার প্রেসিডেন্ট সারা কুগংগেলোয়া, এবং হংকংয়ের প্রধান নির্বাহী ক্যারি লাম
নিবন্ধে বলা হয়, ‘দেশের সবচেয়ে বেশি সময় ক্ষমতাসীন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ফেব্রুয়ারির শুরু থেকেই চীনে বসবাসরত বাংলাদেশী নাগরিকদের দেশে ফেরত আনা শুরু করেন
মার্চের শুরুতে প্রথম সংক্রমণের বিষয়টি নিশ্চিত হবার সঙ্গে সঙ্গে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করেন এবং কম গুরুত্বপূর্ণ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোকে অনলাইনে কার্যক্রম পরিচালনার নির্দেশ দেন
নিবন্ধে আরো বলা হয়, তিনি (শেখ হাসিনা) দেশের সকল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে করোনা রোগী শনাক্ত করতে স্ক্রিনিংয়ের জন্য মেশিন ব্যবহার করেন যেখানে এখন পর্যন্ত লাখ ৫০ হাজার মানুষকে পরীক্ষা করা হয়েছে (এদের মধ্যে ৩৭ হাজার মানুষকে দ্রুত কোয়ারেন্টাইনে প্রেরণের নির্দেশ দেয়া হয়), যা এখন পর্যন্ত যুক্তরাজ্য করতে পারেনি
নিবন্ধটি আরো জানায়, নারীরা এখন বিশ্বের ১৮ টি দেশের ৫৪৫ মিলিয়ন জনগণকে শাসন করছে যা কিনা বিশ্বের মোট জনসংখ্যার শতাংশ
বাংলাদেশ থেকে ইথিওপিয়া, জর্জিয়া এবং সিঙ্গাপুর সর্বত্রই নারীরা রাজনৈতিক নেতৃত্বে উঠে আসছেন, যারা এই সংকটে তাঁদের প্রতিভার স্বাক্ষরও রাখছেন
এই নেতারা বুদ্ধিদীপ্ত এবং বুদ্ধিমত্তায় পরিপূর্ণ যারা কিনা বিশ্বে তা প্রকাশের অপেক্ষায় ছিলেন তাঁরা শতবর্ষ পূর্বের সম্মিলিত বুদ্ধিদীপ্ত বিনিয়োগের (রিটার্ন অন ইনভেস্টমেন্টআরওআই) ফসল,’ নিবন্ধটি উল্লেখ করে
নিবন্ধে বলা হয়েছে যে, লিঙ্গ সমতা ভিত্তিক আমাদের রাজনৈতিক এবং অর্থনৈতিক পদ্ধতি, যা মানবীয় দক্ষতার অন্যতম বিজয়ের ফলের ভাল ব্যবহার
আমাদের পার্থক্য আনন্দদায়ক এবং কার্যকর আমাদের এগুলি স্বীকৃতি দেওয়া, ক্ষমতায়ন এবং ব্যবহার করা উচিত এখন! এটি আমাদের এখনও বাঁচাতে পারে’, নিবন্ধে উল্লেখ করা হয়
এর আগে ফোর্বস ১৩ এপ্রিলের সংখ্যায় করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে নিজ নিজ দেশে সফল জন নারী নেতৃত্বের কথা উল্লেখ করা হয়
তাঁরা হচ্ছেনজার্মান চ্যান্সেলর এ্যাঞ্জেলা মেরকেল, নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্ন, আইসল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী ক্যাট্রিন জ্যাকোবসডোট্টির, ফিনল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী সান্ন মারিন, ডেনমার্কের প্রধানমন্ত্রী মেট্টে ফ্রেডোরিকসেন, নরওয়ের প্রধানমন্ত্রী আর্না সোলবার্গ এবং তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট শি ইংওয়েন

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*