গাজীপুরের দু’টি কারখানায় ভয়াবহ আগুন, ৬ ঘণ্টা পর নিয়ন্ত্রণে

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

পজিটিভ বিডি নিউজ ২৪ ডটকম: গাজীপুরের কালিয়াকৈরে জুতা তৈরির একটি কারখানায় শনিবার ভয়বহ অগ্নিকাণ্ড ঘটেছে। ফায়ার সার্ভিসের ৮টি ইউনিটের কর্মীরা প্রায় ৬ ঘন্টা চেষ্টার আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে আগুন পুরোপুরি নেভাতে গভীর রাত পর্যন্ত ড্যাম্পিংয়ের কাজ করছিল তারা। এদিকে একই রাতে ওই উপজেলার অপর একটি কারখানায় আগুন লাগে।

ফায়ার সার্ভিসের কালিয়াকৈর ষ্টেশনের স্টেশন কর্মকর্তা মো. কবিরুল ইসলাম ও স্থানীয়রা জানান, কালিয়াকৈর উপজেলার পল্লীবিদ্যুৎ উলুসারা এলাকাস্থিত এফবি ফুটওয়্যার লিমিটেড নামের কারখানায় জুতা ও সোল তৈরী করা হয়। শনিবার বিকেল ৪টার দিকে স্টিল ফ্রেমে টিনসেডের তৈরি একতলার এ কারখানায় হঠাৎ বিকট শব্দে বৈদ্যুতিক মোটর বিষ্ফোরণ হলে আগুনের সূত্রাপাত হয়। কারখানায় জুতা তৈরির ক্যামিকেল ও সোলসহ দাহ্য পদার্থ থাকায় মুহূর্তেই আগুন পুরো ফ্লোরে ছড়িয়ে ভয়াবহ আকার ধারণ করে। আগুনের ভয়াবহতা দেখে কারখানা থেকে কর্মরত শ্রমিকরা দ্রুত বেরিয়ে যায়। এসময় শ্রমিকরা আগুন নেভানোর চেষ্টা করে ব্যার্থ হয়।

ফায়ার সার্ভিসের সদর দফতরের উপ-পরিচালক দেবাশীষ বর্ধন জানান, খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কালিয়াকৈর, গাজীপুর, সাভার ইপিজেড, কাশিমপুরসহ আশপাশের ষ্টেশনের ৮টি ইউনিটের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করেন। আগুনের ভয়াবহতায় কারখানা ভবনের একাংশের সেড ধসে পড়ে। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা প্রায় ৬ ঘন্টা চেষ্টার পর রাত ১০টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে আগুন পুরোপুরি নেভাতে গভীর রাত পর্যন্ত ড্যাম্পিংয়ের কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। আগুন লাগার সঠিক কারণ এ মুহূর্তে বলা যাচ্ছে না। এখন পর্যন্ত হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি।

এদিকে একই রাতে কালিয়াকৈর উপজেলার রহমত টেক্সটাইল মিলের একটি তুলার গুদামে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। ফায়ার সার্ভিসের চারটি ইউনিটের কর্মীরা আগুন নেভানোর কাজ করছে।

গাজীপুর ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারি পরিচালক আব্দুল হামিদ জানান, কালিয়াকৈরের মৌচাক এলাকাস্থিত রহমত টেক্সটাইল মিলের তুলার গুদামে শনিবার রাত ১০টার দিকে আগুনের সূত্রাপাত হয়। কারখানায় কাপড় ও সুতা উৎপাদনের জন্য বিপুল পরিমাণ তুলা বড় আকারের এ গুদামে রাখা ছিল। আগুন মুহূর্তেই গুদামে রাখা তুলার গাঁইটে ছড়িয়ে পড়ে এবং ভয়াবহ আকার ধারণ করে। স্থানীয়রা আগুন নেভানোর চেষ্টা করে ব্যার্থ হয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের জয়দেবপুর ষ্টেশনের দুটি, শ্রীপুর ও ডিবিএল ষ্টেশনের ১টি করে মোট ৪টি ইউনিটের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করেন। তারা প্রায় ২ ঘন্টা চেষ্টার পর রাত ১২টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে আগুন পুরোপুরি নেভাতে গভীর রাত পর্যন্ত ড্যাম্পিংয়ের কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। আগুনে গুদামের তুলা পুড়ে যায় ও ক্ষতগ্রস্ত হয়। প্রাথমিকভাবে আগুনের কারণ জানা যায়নি।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*