ঢাকা ছাড়লো টাইগাররা, মানতে হবে কঠোর নিয়ম

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

পজিটিভ বিডি নিউজ ২৪ ডট কম (ঢাকা): নিউজিল্যান্ডের উদ্দেশে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের বিমানে বেশ ফুরফুরে মেজাজে আছেন টাইগাররা

নিউজিল্যান্ডের উদ্দেশে আজ(মঙ্গলবার) দেশ ছেড়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। করোনাকালীন সময়ে এটিই তামিম-মাহমুদউল্লাহ বাহিনীর প্রথম সফর। আজ ২০ জন ক্রিকেটার সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের সরাসরি ফ্লাইটে বিকাল ৪টায় ঢাকা ত্যাগ করেন। এছাড়া দলের সঙ্গে বোর্ডের কমিউনিকেশন গ্যাপ যেন না থাকে সেজন্য প্রতিনিধি হয়ে নিউজিল্যান্ড সফরে গেছেন মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস। তবে নিউজিল্যান্ডে পৌছে করোনার কারনে কঠিন নিয়ম মানতে হবে তামিমদের। এই সফরের যাবার আগে এমনটাই জানিয়েছেন বিসিবির চিকিৎসক দেবাশিষ চৌধুরী।

নিউজিল্যান্ড সফরের আগে করোনা পরীক্ষার নেগেটিভ ফল হাতে পেয়েছে টাইগাররা। কিন্তু টেস্টের ফলাফল যাই হোক না কেন, ওশেনিয়াতে মানতে হবে তাদের স্বাস্থ্য বিভাগের প্রটোকল। কোভিড আক্রান্ত এ পৃথিবীতে এখনো অনেকটা স্বাভাবিক আছে নিউজিল্যান্ড। এ অবস্থা বজায় রাখতে তাদের স্বাস্থ্য প্রটোকল মানার যে বাধ্যবাধকতা তারা করেছে, সেখান থেকে মাফ করা হয়নি কাউকেই। তাই বাংলাদেশে টাইগারদের রিপোর্ট যাই আসুক, তা নিয়ে খুব একটা মাথা ঘামাচ্ছে না কিউই কর্তৃপক্ষ। ওশেনিয়াতে পা দিতেই তামিম-মুশফিকদের মানতে হবে তাদের কঠোর কোয়ারেন্টিন আইনকানুন। হোটেলে ৬ দিন বন্দী জীবনযাপন করতে হবে টাইগারদের। এমনকি ৬ দিন সফরকারীদের কপালে জুটবে না রুম সার্ভিসও। নিজেদের কাজ করতে হবে নিজেদেরকেই। মুক্ত বাতাস আর আলোর সঙ্গে দেখা হবে, তবে সেটাও ঘড়ি ধরে ঘণ্টা খানেকের জন্য।

আর এই নিয়মগুলো মানতে পারলেই কেবল, জিম এবং অনুশীলনের অনুমতি পাবে বাংলাদেশ। তবে, দলবদ্ধ হয়ে তা করতে হলে অপেক্ষা করতে হবে অন্তত ১৪ দিন। এরপর কুইন্সটাউনে পাঁচ দিনের ক্যাম্প হবে তামিম-মুশফিকদের।

এ বিষয় বিসিবির চিকিৎসক দেবাশিষ চৌধুরী বলেন, আমরা নিউজিল্যান্ড বোর্ডের চাহিদা অনুযায়ী ক্রিকেটারদের তিনবার করোনা টেস্ট করেছি। প্রত্যেকটিতেই সবাই নেগেটিভ হয়েছেন। আশা করি সেখানেও কোন সমস্যা হবে না। তবে সেখানে পৌছে ৬ দিন রুম থেকে বের হওয়া যাবে না। এমনকি কোন সার্ভিসও পাওয়া যাবে না। আমাদের আচরণ ভালো থাকলে তারা সুবিধা বাড়িয়ে দেবে। ৬ দিন পর থেকে হালকা জিম করা যাবে, সেটাও গ্রুপ হয়ে। এরপর সেই গ্রুপেই অনুশীলন শুরু করতে হবে। ১৪ দিন পর থেকে আমরাও স্বাভাবিক জীবন যাপন করতে পারবো। তাছাড়া আমাদের ক্রিকেটাররাবেশ কয়েক মাস ধরেই বায়ো সিকিউর বাবলের মধ্যে ছিল। তাই আশা করি আমাদের খেলোয়াড়রা কোয়ারেন্টিন চ্যালেঞ্জটা উতরে যাবেন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*