ঢাকা-জলপাইগুড়ি রুটে ‘মিতালি এক্সপ্রেস’ ট্রেনের উদ্বোধন বিকেলে

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

পজিটিভ বিডি নিউজ ২৪ ডট কম:  ঢাকা থেকে ভারতের নিউ জলপাইগুড়ি পর্যন্ত চলাচলকারী ‘মিতালি এক্সপ্রেস’ ট্রেনের উদ্বোধন করা হবে আজ। শনিবার (২৭ মার্চ) বিকেল সাড়ে ৩টায় বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ট্রেনটি উদ্বোধন করার কথা রয়েছে।

এর আগে রেলওয়ে সূত্র জানায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে ঢাকা-জলপাইগুড়ি চলাচলকারী ট্রেনটির নাম প্রম্তাব করা হয়েছে ‘মিতালী এক্সপ্রেস’। ভারতের আপত্তি না থাকলে এই নামটিই চূড়ান্ত হবে।

গত রবিবার (২১ মার্চ) রেলওয়ের পক্ষ থেকে নতুন ট্রেনের প্রস্তাবিত নাম জানানো হয়।

ট্রেনটি উভয় দেশ থেকে সপ্তাহে দুই দিন করে চলাচল করবে। বাংলাদেশ থেকে সোমবার এবং বৃহস্পতিবার ট্রেনটি যাত্রা করবে। অন্যদিকে ভারত থেকে রবিবার ও বুধবার যাত্রার প্রস্তাব করা হয়েছে। ট্রেনটি পথে কোনো স্টেশনে দাঁড়াবে না।

মোট যাত্রীবাহী কোচ থাকবে আটটি। চারটি কেবিন কোচ ও চারটি এসি চেয়ার কোচ। ঢাকা থেকে নিউ জলপাইগুড়ি পর্যন্ত ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে ২২০০ টাকা। এছাড়া উত্তরাঞ্চলের মানুষেরা চিলাহাটি স্টেশন থেকেও যাতায়াত করতে পারবে।

সূত্রমতে, ট্রেনটি বাংলাদেশের নীলফামারীর চিলাহাটি ও ভারতের হলদিবাড়ি রেলপথ দিয়ে চলাচল করবে। এতে নীলফামারীর চিলাহাটি স্টেশনের জন্য দুটো পৃথক কোচ বরাদ্দ থাকবে। সমগ্র উত্তরবঙ্গের মানুষ চিলাহাটি থেকে ট্রেনে উঠে নিউ জলপাইগুড়ি যেতে পারবে এবং নিউ জলপাইগুড়ি থেকে চিলাহাটি এসে নামতে পারবে।

ট্রেনটি ভারতের সময় দুপুর ১২টা ১০ মিনিটে সপ্তাহে রবি ও বুধবার নিউ জলপাইগুড়ি (এনজিপি) থেকে ছেড়ে হলদিবাড়ি ইন করবে দুপুর ১টা ১০ মিনিটে। এই স্টেশনে ৫ মিনিট বিরতি দিয়ে ১টা ১৫ মিনিটে ছেড়ে আসবে।

এর পর বাংলাদেশ সময় বেলা ২টায় ট্রেনটি বাংলাদেশের নীলফামারীর চিলাহাটি রেলস্টেশনে ইন করবে। এখানে ৩০ মিনিট বিরতি দিয়ে ট্রেনের কোচে পানি নেওয়া ও ভারতীয় ইঞ্জিনটি কেটে দিয়ে বাংলাদেশের ইঞ্জিন সংযুক্ত ও চিলাহাটির যাত্রীর জন্য দুই কোচ কেটে রাখার জন্য। এর পর দুপুর আড়াইটায় ট্রেনটি চিলাহাটি থেকে ছেড়ে ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট রেলস্টেশনে পৌঁছাবে রাত সাড়ে ১০টায়। পথে আর কোথাও দাঁড়াবে না।

ফিরতি যাত্রায় বাংলাদেশ থেকে সোম ও বৃহস্পতিবার ট্রেনটি ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট রেলস্টেশন থেকে রাত ৯টা ৫০ মিনিটে ছেড়ে যাবে। এর পর নীলফামারীর চিলাহাটি রেলস্টেশনে ইন করবে ভোর ৫টা ৪৫ মিনিটে।

এখানে চিলাহাটির যাত্রীদের জন্য রাখা দুই কোচ সংযুক্তকরণ, ট্রেনে পানি নেওয়া এবং বাংলাদেশের ইঞ্জিন কেটে ভারতীয় ইঞ্জিন সংযুক্ত করে ভোর ৬টা ১৫ মিনিটে ভারতের দিকে ছেড়ে যাবে। ভারতীয় সময় ভোর ৬টায় ট্রেনটি হলদিবাড়ি ইন করবে।

৫ মিনিট বিরতি দিয়ে ট্রেনটি হলদিবাড়ি থেকে ভোর ৬টা ৫ মিনিটে ছেড়ে নিউ জলপাইগুড়ি পৌঁছবে সকাল ৭টা ৫ মিনিটে।

বর্তমানে দুই দেশের মধ্যে ‘ঢাকা-কলকাতা’ রুটে ‘মৈত্রী’ এবং ‘কলকাতা-খুলনা’ রুটে ‘বন্ধন’ নামে দুটি ট্রেন চলছে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*