দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে স্ত্রীর ওষুধ কিনতে বের হয়ে লাশ হয়ে ফিরল ভ্যান চালক মিজানুর

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

স্টাফ রিপোর্টার : বেশ কিছুদিন থেকে স্ত্রী আকতারা বেগম (৩০) অসুস্থ। সোমবার (১৫ জুন) সকালে স্ত্রীর ওষুধ কেনার কথা বলে বাড়ি থেকে চার্জার ভ্যান নিয়ে বের হন মিজানুর।

সকাল গড়িয়ে দুপুর, দুপুর গড়িয়ে বিকেল। অসুস্থ স্ত্রী আর একমাত্র মেয়ে (১১) বাবার পথ চেয়ে বসে থাকে। একসময় সন্ধ্যা গড়িয়ে নামে রাত। বাড়ি ফেরেন না মিজানুর। চিন্তায় দিশেহারা হয়ে পড়েন স্ত্রী-কন্যা। এদিক সেদিক খবর নিয়েও মেলে না মিজানুরের খোঁজ।

অবশেষে মঙ্গলবার (১৬ জুন) বিকেলে খবর এলো। তাদের বাড়ির কিছু দূরেই গলা কাটা এক ব্যক্তির লাশ পড়ে রয়েছে। এই খবরে আঁৎকে ওঠেন আকতারা। পরিবারের লোকজন লাশ দেখে এসে খবর দেয় মিজানুরকে কে বা কারা গলা কেটে হত্যা করেছে। লুট করে নিয়ে গেছে চার্জার ভ্যানটি।

মর্মান্তিক এ ঘটনাটি ঘটেছে দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলার পুলবান্ধা গ্রামে। নিহত মিজানুর ফুলবাড়ী উপজেলার তেতুলিয়া গ্রামের আব্দুল মান্নানের ছেলে।

নিহতের পরিবারের বরাত দিয়ে নবাবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অশোক কুমার চৌহান জানান, সোমবার সকালে স্ত্রীর ওষুধ কেনার কথা বলে বাড়ি থেকে ভ্যান নিয়ে বের হয়েছিলেন মিজানুর। মঙ্গলবার বিকেলে নবাবগঞ্জের পুলবান্ধা এলাকায় মাঠের মধ্যে জঙ্গলে মিজানুরের গলাকাটা লাশ দেখতে পায় এক ব্যক্তি।

পরে বিষয়টি পুলিশকে জানালে লাশ উদ্ধার করা হয়। দুর্বৃত্তরা চার্জারভ্যানটি চুরি করতেই মিজানুরকে হত্যা করেছে বলে জানান ওসি অশোক কুমার চৌহান।

বিরামপুর সার্কেলের এএসপি মিথুন সরকার জানান, লাশ ময়না তদন্তের জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের পরিবার একটি হত্যা মামলা করবেন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*