দুর্নীতির বিরুদ্ধে ‘জিরো টলারেন্স’ নীতি অনুসরণ করা হবে: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

পজিটিভ বিডি নিউজ ২৪ ডট কম: জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেছেন, দেশের সকল পর্যায়ে ‌দুর্নীতির বিরুদ্ধে ‘জিরো টলারেন্স’ নীতি কঠোরভাবে অনুসরণ করা হবে। আজ বিকেলে সচিবালয় কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সম্মেলন কক্ষে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের শুদ্ধাচার পুরস্কার ২০১৭-১৮ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ সরকারের অন্যতম নির্বাচনী অঙ্গীকার ছিল একটি দুর্নীতিমুক্ত দেশ গঠন করা। সে অঙ্গীকার পূরণে দেশের সকল পর্যায়ে দুর্নীতি দূরীকরণে সরকার বদ্ধপরিকর। তাই দুর্নীতি প্রতিরোধে সরকার জিরো টলারেন্স নীতি কঠোরভাবে অনুসরণ করবে।
তিনি আরেও বলেন, দুর্নীতির পাশাপাশি জঙ্গিবাদ ও মাদকদ্রব্যও দেশের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। তাই দুর্নীতির পাশাপাশি, জঙ্গিবাদ ও মাদকের বিরুদ্ধেও সরকার জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে।

ফরহাদ হোসেন বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে জনপ্রশাসনে দক্ষতা বৃদ্ধি, দুর্নীতি দমন ও শুদ্ধাচার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে বিভিন্ন কার্যক্রম বাস্তবায়িত হয়েছে। জনপ্রশাসনে নিযুক্ত কর্মচারীরা যাতে স্বচ্ছতা ও নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করে নাগরিকদের সেবা প্রদান করতে সক্ষম হয় তা নিশ্চিত করা অত্যন্ত জরুরি। সে লক্ষ্যে জনপ্রশাসনের আইন-কানুন বিধি-বিধানের পরিবর্তন ও সংস্কার সাধন করে একে অধিকতর যুগোপযোগী করার প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী সুখী-সমৃদ্ধ সোনার বাংলা এবং রাষ্ট্রীয় ও সামাজিক প্রতিষ্ঠানসমূহে সুশাসন প্রতিষ্ঠা করতে রাষ্ট্রের সকল পর্যায়ে শুদ্ধাচার প্রতিষ্ঠার আহবান জানান। তিনি বলেন, দেশের উন্নয়নকে ত্বরান্বিত করে বাংলাদেশকে উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত করতে হলে সকলকে শুদ্ধাচার চর্চা করতে হবে। জনগণকে দ্রুততম সময়ে মানসম্মত সেবা প্রদানের লক্ষ্যে সরকারী কর্মচারীদের নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সাথে কাজ করতে হবে।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব ফয়েজ আহম্মদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ লোক প্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের রেক্টর ড. এম. আসলাম আলম। অনুষ্ঠানে এবছর দপ্তর/সংস্থা প্রধানদের মধ্য হতে বিয়াম ফাউন্ডেশনের প্রাক্তন মহাপরিচালক শেখ মুজিবুর রহমান, এনডিসি (বর্তমানে সচিব, সমন্বয় ও সংস্কার, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ), গ্রেড-১ হতে গ্রেড-১০ ভুক্ত ক্যাটাগরিতে ঊর্ধ্বতন নিয়োগ-১ শাখার উপসচিব মো. তমিজুল ইসলাম খান এবং গ্রেড-১১ হতে গ্রেড-২০ ভুক্ত ক্যাটাগরিতে প্রতিমন্ত্রীর দপ্তরের অফিস সহায়ক মো. জাকির হোসেন ভূইয়ার হাতে শুদ্ধাচার পুরস্কার তুলে দেন প্রতিমন্ত্রী।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*