ফুলবাড়ীতে পরিত্যাক্ত প্লাষ্টিক দ্বারা তৈরি হচ্ছে উন্নত মানের সুতলি ও রশি

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

পজিটিভ বিডি নিউজ ২৪ ডটকম: ফুলবাড়ী উপজেলার পৌরসভা এলাকার চাঁদপাড়া গ্রামে গ্রামগঞ্জ থেকে সংগ্রহ করা পরিত্যাক্ত প্লাষ্টিক দ্বারা তৈরি হচ্ছে উন্নত মানের সুতলি ও রশি। ফুলবাড়ী উপজেলার উত্তর সুজাপুর গ্রামের স্থায়ী বাসিন্দা মোঃ আনিছুর রহমান প্রধান মন্ত্রীর বিনিয়োগ উন্নয়ন দপ্তর এর আয়োজনে উদ্দ্যেক্তা সৃষ্টি ও দক্ষতা প্রকল্প (ইএসডিডি) দিনাজপুর এ প্রশিক্ষণ নিয়ে ফুলবাড়ীতে ছোট আকারে একটি প্লাষ্টিক কারখানা তৈরি করেন।

এখানে দিনাজপুরের বিভিন্ন অঞ্চলে পড়ে থাকা পরিত্যাক্ত প্লাষ্টিক সংগ্রহ করে তা দিয়ে তৈরি করেন উন্নতমানের সুতলি ও রশি। এই কারখানায় ৩৫ জন পুরুষ ও মহিলা কাজ করছেন। প্রত্যেকের কাজ ভিন্ন ভিন্ন। বিভিন্ন প্লাষ্টিক বাছাই করে তা মেশিনে কেটে ঝুরি করা হচ্ছে তারপর পানিতে ধুয়ে পরিষ্কার করে রোদে শুকিয়ে মেশিনে ফেলানোর পর বের হচ্ছে উন্নত মানের সুতলি ও রশি।

তাসিন এন্টারপ্রাইজ এর স্বত্তাধিকারী মোঃ আনিছুর রহমান জানান, প্রশিক্ষণ নেয়ার পর অর্থের যোগান না থাকায় অনেক কষ্টে আমি ফুলবাড়ীর চাঁদপাড়া গ্রামে ৩৩ শতক জায়গায় ক্রয় করে ২০২০ ইং সালের এপ্রিল মাসে বানিজ্যিক ভাবে উৎপাদন শুরু করি। তিনি আরও জানান, কাঁচামাল বিভিন্ন এলাকা থেকে সংগ্রহ করা হয়। তার পর বাছাইকরে প্লাষ্টিকের মান নির্ণয় করা হয়। এতে করে পরিবেশ বিপন্ন থেকে দেশ রক্ষা পাচ্ছে।

তিনি আরও জানান, মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর এইরুপ ক্ষুদ্র শিল্প উদ্দ্যোক্তাদেরকে অর্থনৈতিক ভাবে সহযোগীতা প্রদান করলে আমার মত বেকারেরা নিজের পায়ে দাঁড়াতে পারবে। দেশের অনাচে কানাচে প্লাষ্টিক আর পড়ে থাকছেনা। এখন সব গুলোই কাজে লাগছে।

গতকাল শনিবার সকাল ১১ টায় তার চাঁদপাড়া গ্রামের প্লাষ্টিক কারখানায় গিয়ে দেখা যায় সেখানে কিভাবে এই প্লাষ্টিক থেকে সুতলি ও রশি তৈরি হচ্ছে। নিখুদভাবে দক্ষ কারিগর এবং শ্রমিকেরা প্লাষ্টিক থেকে সুতা তৈরির কাজ করছেন। এই কারখানায় উৎপাদিত প্লাস্টিকের তৈরি  সুতলী ও রশি বর্তমান দিনাজপুর সহ বিভিন্ন জায়গায় সরবরাহ করছেন। ভবিষ্যতে সরকারিভাবে ঋণ দেওয়া হলে তাসিন এন্টারপ্রাইজের সত্ত্বাধিকারী উন্নতমানের মেশিন স্থাপন করে আরও  উন্নতমানের প্লাস্টিক  সামগ্রী  তৈরি করতে সক্ষম হবেন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*