ফেনীতে বিস্কুট কারখানায় আগুন, ৩০ কোটি টাকা ক্ষয়ক্ষতির দাবি

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

পজিটিভ বিডি নিউজ ২৪ ডট কম (ফেনী): ফেনীতে গতকাল বুধবার রাতে বিস্কুট কারখানায় লাগা আগুন নেভানোর কাজে ব্যস্ত ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা।

ফেনীতে গতকাল বুধবার রাতে একটি বিস্কুট কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে কারখানাটি সম্পূর্ণ পুড়ে গেছে। কারখানা কর্তৃপক্ষ দাবি করেছে, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় তাদের অন্তত ৩০ কোটি টাকার সম্পদের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

গতকাল রাত ১২টার দিকে ফেনী সদর উপজেলার কাশিমপুর গ্রামে অবস্থিত স্টার লাইন ফুড প্রোডাক্টস কারখানার একটি ইউনিটে আগুন লাগে। পরে তা চারপাশে ছড়িয়ে পড়ে। ফেনী ছাড়াও সোনাগাজী, ছাগলনাইয়া ও ফুলগাজী ফায়ার সার্ভিসের ৯টি ইউনিট আগুন নেভানোর জন্য কাজ করে। আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৮টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।

স্থানীয় বাসিন্দা ও কারখানার শ্রমিকেরা বলেন, কারখানার কার্টনের ইউনিট থেকে আগুন দ্রুত চারপাশে ছড়িয়ে পড়ে। নিচের দিক থেকে ওপরে দ্বিতীয় ও তৃতীয় তলার দিকে আগুন যাওয়ায় ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে শ্রমিকদের স্বজনেরা কারখানার সামনে ভিড় জমান। এ সময় ফেনী-নোয়াখালী-লক্ষ্মীপুর আঞ্চলিক মহাসড়কে যান চলাচলে বিঘ্ন ঘটে। পুলিশ ও র‍্যাবও উদ্ধারকাজে সহায়তা করেছে।

স্টার লাইন ফুড প্রোডাক্টসের মহাব্যবস্থাপক রবিউল দাবি করেন, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় তাঁদের ৩০ কোটি টাকার বেশি ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। আগুনে বাজারে যাওয়ার জন্য অপেক্ষায় থাকা কোটি কোটি টাকার শুকনা খাদ্য ও বিভিন্ন যন্ত্রপাতি পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

ফেনী ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক পূর্ণচন্দ্র মুৎসুদ্দি বলেন, বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। ৯টি ইউনিট আগুন নেভানোর কাজ করেছে। আগুনে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিরূপণ করা হবে বলে তিনি জানান।

কারখানার কেক কারিগর আবুল হোসেন বলেন, আগুন লাগার ঘটনায় শ্রমিকেরা দুশ্চিন্তায় পড়েছেন। কাজ বন্ধ থাকলে বেতন বন্ধ হয়ে যায় কি না, এই ভয়ে আছেন তাঁরা।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*