বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী: কাউন্টডাউন শুরু ১০ জানুয়ারি

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

পজিটিভ বিডি নিউজ ২৪ ডট কম: ৪ ডিসেম্বর বুধবার রাজধানীর আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে জন্মশতবার্ষিকীর কর্মসূচি নিয়ে অনুষ্ঠিত এক মতবিনিময় সভায় এ কথা জানানো হয় ‘‘জাতির  জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনে দেশজুড়ে কাউন্টডাউন (ক্ষণগণনা) শুরু হবে আগামী ১০ জানুয়ারি’’। এর আগে কাউন্টডাউনের সময় ৮ ডিসেম্বর নির্ধারণ করা হলেও ১০ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে ওইদিন এ কর্মসূচি শুরুর সিদ্ধান্ত হয়েছে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটি আয়োজিত ওই সভায় তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান ছাড়াও বিভিন্ন গণমাধ্যমের সম্পাদক, সিনিয়র সাবাদিক ও সরকারের শীর্ষ পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় উদযাপন বাস্তবায়ন কমিটির সমন্বয়ক কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী বলেন, আগামী বছরের ১০ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস। ওইদিন থেকেই তার জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের কাউন্টডাউন শুরু হবে। কেন্দ্রীয়ভাবে বঙ্গবন্ধুকন্যা ও  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ কর্মসূচির উদ্বোধন করবেন।

মতবিনিময় সভায় তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান বলেন, বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন ইতিহাসের একটি মাহেন্দ্রক্ষণ। আমরা তার প্রতি যথাযথ সম্মান রেখে এ অনুষ্ঠান উদযাপন করতে চাই।

অনুষ্ঠান উদযাপনে গণমাধ্যম সম্পাদক ও সিনিয়র সাংবাদিকদের সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।

উদযাপন কমিটির সভাপতি ও জাতীয় অধ্যাপক ড. রফিকুল ইসলাম বলেন, আমরা মুজিব বর্ষ উদযাপন করতে চলেছি। সে কারণে নানা উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এসব উদ্যোগের সঙ্গে তরুণদের সম্পৃক্ত করতে চাই। তাই স্কুল-কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় ও মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের নানা অনুষ্ঠানে সম্পৃক্ত করা হবে।

অনুষ্ঠানে ‘মুজিব বর্ষ’ উদযাপনের বিষয়ে গণমাধ্যমের সম্পাদক ও সিনিয়র সাংবাদিকেরাও তাদের মতামত তুলে ধরেন।

সভায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব সোহরাব হোসাইন, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব ফয়েজ আহমেদ, তথ্য সচিব আব্দুল মালেক, সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার লেফটেন্যান্ট জেনারেল মো. মাহফুজুর রহমান, প্রধান তথ্য কর্মকর্তা সুরথ কুমার সরকার, শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী উপস্থিত ছিলেন।

আর গণমাধ্যম সম্পাদক ও সিনিয়র সাংবাদিকদের মধ্যে বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার (বাসস) ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, ইংরেজি দৈনিক দ্য ডেইলি অবজারভারের সম্পাদক ইকবাল সোবহান চৌধুরী, কালের কণ্ঠ সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলন, বাংলানিউজটোয়েন্টিফোরের সম্পাদক জুয়েল মাজহার, গাজী টিভির প্রধান সম্পাদক সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা, বণিক বার্তার সম্পাদক দেওয়ান হানিফ মাহমুদ, কালের কণ্ঠের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মোস্তফা কামাল, একাত্তর টিভির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান সম্পাদক মোজাম্মেল বাবু, নিউজটোয়েন্টিফোরের হেড অব নিউজ রাহুল রাহা, বাংলাদেশ প্রতিদিনের যুগ্ম-সম্পাদক আবু তাহের উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের মহাসচিব ও বাংলাদেশ প্রতিদিনের বিশেষ প্রতিনিধি শাবান মাহমুদ, সোহরাব হাসান, সুভাষ সিংহ রায়, মাসুদা ভাট্টি ও সাইফুল ইসলামও মতবিনিময় সভায় অংশ নেন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*