বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন উপলক্ষে ডিএমপি’র নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

পজিটিভ বিডি নিউজ ২৪ ডটকম (ঢাকা) : বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন ২০২১ উপলক্ষে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) পক্ষ থেকে সবধরণের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।
মুজিব বর্ষ উপলক্ষে আগামী ১০ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন ২০২১ (ম্যারাথন দৌঁড়) । ফুল ও হাফ দু’ক্যাটাগরিতে রাজধানীর আর্মি স্টেডিয়াম থেকে শুরু হয়ে হাতিরঝিল এসে শেষ হবে ম্যারাথন দৌঁড়টি।
৪ জানুয়ারি সোমবার ডিএমপি হেডকোয়ার্টার্সে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন ২০২১ উপলক্ষে গৃহীত নিরাপত্তা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে সভায় অংশগ্রহণ করেন প্রভোস্ট মার্শাল ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আবু নাসের মো. ইলিয়াছ। ডিএমপি’র এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়।
ম্যারাথন উপলক্ষে গৃহীত নিরাপত্তা ব্যবস্থার মধ্যে থাকবে, ম্যারাথন রুটে পিকেট ব্যবস্থা, ফুট পেট্রোল, বেরিকেড চেকপোস্ট ব্যবস্থা, রুফটপ ডিউটি, মোবাইল পেট্রোলিং এবং স্টিল ও ভিডিও ক্যামেরা মোতায়েন। এছাড়াও ম্যারাথন রুটে কোন ভাসমান দোকান বসতে দেওয়া হবে না। থাকবে বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট ও ডগ স্কোয়াড দিয়ে ম্যারাথন রুটে সুইপিং ব্যবস্থা এবং মোতায়েন থাকবে মেডিকেল টিম, ফায়ার টেন্ডার ও এ্যাম্বুলেন্স।
বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, আর্মি স্টেডিয়াম থেকে ৪২ দশমিক ১৯৫ কিলোমিটার ফুল ম্যারাথন ও ২১ দশমিক ৯৭ কিলোমিটার হাফ ম্যারাথন শুরু হয়ে হাতিরঝিল এসে শেষ হবে। রুট হিসেবে বাংলাদেশ আর্মি স্টেডিয়াম-কাকলী ক্রসিং-কামাল আতাতুর্ক এভিনিউ-গুলশান ২- গুলশান ১- পুলিশ প্লাজা- হাতিরঝিল ( সম্পূর্ণ হাতিরঝিল চার চক্কর দিয়ে শেষ হবে)। ফুল ম্যারাথনে অংশ নিবেন ১০০ জন যা শুরু হবে ১০ জানুয়ারি সকাল ৬ টা ৩০ মিনিটে, অন্যদিকে ১০০ জনের অংশগ্রহণে হাফ ম্যারাথন শুরু হবে সকাল ৬ টা ৪০ মিনিটে। ম্যারাথনে অংশগ্রহণকারী সকলকে করোনা টেস্ট করে নেগেটিভ হয়ে দৌড়ে অংশ নিতে হবে বলে সভা থেকে জানা যায়।
সভা থেকে আরও জানা যায়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন ২০২১ এ অংশগ্রহণকারী বিদেশী এ্যাথলেটদের মধ্যে ফুল ম্যারাথনে ৩১ জন ও হাফ ম্যারাথনে ৬ জন অংশগ্রহণ করবেন।
প্রভোস্ট মার্শাল ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আবু নাসের মো. ইলিয়াছ বলেন, কোভিড পরিস্থিতিতে মুজিব বর্ষে অনেক ইভেন্ট থাকলেও অনুষ্ঠিত করা সম্ভব হয়নি। মুজিববর্ষ উদযাপনের অংশ হিসেবে এই ম্যারাথন ইভেন্টের আয়োজন করা হয়েছে।
সভাপতির বক্তৃতায ডিএমপি কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম বলেন, ‘সারা বছর ধরে আমরা জাতির পিতার জন্মশত বার্ষিকি পালন করতে চেয়েছিলাম। পুলিশের পক্ষ থেকে অনেক প্রোগ্রাম করার কথা থাকলেও কোভিড-১৯ এর জন্য করা সম্ভব হয়নি। মুজিব বর্ষ উপলক্ষে আয়োজিত ম্যারাথনে কোন ধরণের নিরাপত্তার ঘাটতি থাকবে না। আমরা সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দিবো’।
ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (লজিস্টিকস, ফিন্যান্স এন্ড প্রকিউরমেন্ট) ড. এ এফ এম মাসুম রব্বানী, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (কাউন্টার টেরোরিজম) মো. মনিরুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম এন্ড অপারেশনস্) কৃষ্ণ পদ রায়, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (গোয়েন্দা) এ কে এম হাফিজ আক্তার, যুগ্ম পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক-উত্তর), অতিরিক্ত দায়িত্বে অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) মো. আব্দুর রাজ্জাক,  লে. কর্নেল এ এস এম সেফাউল ইসলামসহ মিলিটারি পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ, গোয়েন্দা সংস্থা, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন, ফায়ার সার্ভিস, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রতিনিধিরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*