বিরামপুরে জ্বর-সর্দি নিয়ে কুমিল্লা ফেরত ব্যক্তির মৃত্যু, গ্রামের ৮৪ বাড়ির সকলেই হোম কোয়ান্টোইনে

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

স্টাফ রিপোর্টার : দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার জোতবানী ইউনিয়নের তপসি গ্রামের কুমিল্লা ফেরত মো. ফরহাদ হোসেন (৪০) নামের এক ব্যক্তি জ্বর, সর্দি ও শ্বাসকষ্টে আক্রান্ত হয়ে ৩০ মার্চ সোমবার ভোরে মারা গেছেন। এ ঘটনায় উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার নির্দেশনায় মৃত ব্যক্তির পরিবারের চার সদস্যসহ তপসি গ্রামের ৮৪ বাড়ির সকলকে ব্যক্তিকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রেখেছে স্থানীয় প্রশাসন। মৃত ফরহাদ হোসেন তপসী গ্রামের মৃত হানিফ উদ্দিনের ছেলে।
জোতবানী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক জানান, ফরহাদ হোসেন কুমিল্লায় কৃষি শ্রমিকের কাজ করতো। সে কুমিল্লায় যে বাড়িতে কাজ করতো সেই বাড়ির মালিক সৌদি প্রবাসী। সম্প্রতি বাড়ির মালিক সৌদি থেকে দেশে আসেন। এরপর কুমিল্লার প্রশাসন সৌদি প্রবাসীর ওই বাড়ির সকলকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেন। এ সময় গত ১০/১২ দিন আগে ফরহাদ হোসেন জ্বর সর্দিতে আক্রান্ত হয়ে কুমিল্লা থেকে পালিয়ে নিজ বাড়িতে আসেন। এছাড়াও ফরহাদ হোসেন জন্ডিসেও আক্রান্ত হন। কিন্তু ফরহাদ হোসেন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে না গিয়ে স্থানীয় চিকিৎসকের কাছে চিকিৎসা করাতে থাকেন।  সোমবার ভোরে ফরহাদ হোসেন মারা যান। ফরহাদ হোসেন মারা যাবার পর ওই গ্রামে যাতে কোন লোক ঢুকতে বা বের হতে না পারে সে জন্য গ্রাম পুলিশের পাহারা বসানো হয়েছে। উপজেলা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির সহায়তায় উপজেলা প্রশাসন ও থানা পুলিশের উপস্থিতিতে বিরামপুর উপজেলা পরিষদ জামে মসজিদের প্রেস ইমাম মোঃ মোখলেছুর রহমান সহ ৭ জনের উপস্থিতিতে দাফন সম্পন্ন হয়।

বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মো. সোলায়মান হোসেন মেহেদী জানান, মৃত ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। সেটি ঢাকার আইইডিসিআরে পাঠানো হবে। মৃত ব্যক্তির গোসল করানো চার ব্যক্তিকে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। এছাড়াও ওই গ্রামের সকলকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

 

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*