‘বিরামপুর করোনা পরিস্থিতি’ গ্রুপের উদ্যোগে ঈদ উপহার বিতরণ

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আব্দুর রাজ্জাক, বিশেষ প্রতিনিধি- মহামারী করোনা দুর্যোগে দিনাজপুর দক্ষিণাঞ্চলে ‘বিরামপুর করোনা পরিস্থিতি’ নামে সম্প্রতিকালে একটি জনপ্রিয় ফেসবুক গ্রুপের পক্ষ থেকে দেশ বিদেশের গ্রুপ সংশ্লিষ্ট মেম্বার, শুভাকাঙ্ক্ষীদের আর্থিক সহযোগিতায় এলাকার সাময়িক কর্মহীন অসহায় দরিদ্রদের হাতে ঈদ উপহারস্বরূপ ১৫ মে শুক্রবার খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

গ্রুপটির পরিচালনা পর্ষদের এডমিন রাহাত চৌধুরী বলেন, ১৫ মে শুক্রবার ২য় ধাপে ১০৭ টি পরিবারের মাঝে খাদ্য বিতরণ করা হয়। খাদ্যসামগ্রীর মধ্যে সেমাই চিনি সহ অন্যান্য খাদ্যসামগ্রী রয়েছে। আমরা ইতিপূর্বে ১ম ধাপে ২৪৯ টি পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা প্রদান করেছি। গ্রুপের পক্ষ থেকে আগামীতেও খাদ্য বিতরণ কার্যক্রম চলমান থাকবে।

এডমিন, মডারেটর মোট ১২ জন চৌকস টিম কর্তৃক অক্লান্ত শ্রম ও নিবিড় পর্যবেক্ষণে পরিচালিত গ্রুপে করোনা পরিস্থিতি সহ এলাকার সমসাময়িক জনসচেতনতামূলক নানারকম তথ্যভিত্তিক বিরতীহীন প্রচার প্রচারণা চালানো হচ্ছে। দেশ বিদেশ থেকে এলাকার আপডেট খবরাখবর ‘বিরামপুর করোনা পরিস্থিতি’ গ্রুপের মাধ্যমে পেয়ে জনমনে স্বস্তি প্রকাশ সহ এলাকার কৃষ্টি কালচারের উন্নয়ন ঘটানো এবং আগামীতে বিরামপুর জেলা বাস্তবায়নে গ্রুপটি অগ্রনী ভূমিকা রাখবে বলে সচেতন সমাজ মনে করছেন।

বিরামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ মনিরুজ্জামান বলেন, “রাষ্ট্রদ্রোহিতামূলক কোন প্রকার উস্কানি, গুজব প্রচার এই গ্রুপ থেকে কেউ যেন করতে না পারে এজন্য ‘বিরামপুর করোনা পরিস্থিতি’ গ্রুপ পরিচালনা যাঁরা করছেন সবাইকে সতর্ক থাকার আহবান জানাচ্ছি। সমাজের জন্য যা কিছু কল্যাণকর, সেসব ক্ষেত্রে স্ব স্ব অবস্থান থেকে ভূমিকা রাখুন। উদ্ভূত কোভিড-১৯ ক্রান্তিকালে ‘বিরামপুর করোনা পরিস্থিতি’ গ্রুপের উদ্যোগে গৃহবন্দী দরিদ্রদের মাঝে খাবার বিতরণের মহতি কাজের জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে আন্তরিক মোবারকবাদ জানাচ্ছি”।

বিরামপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ ফরহাদ হোসেন বলেন, “বাংলাদেশের মানুষ অতীতকাল থেকেই প্রাকৃতিক দুর্যোগের সংগে লড়াই করে নিজেদের অস্তিত্ব টিকিয়ে রেখেছে। সারা বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশও যুদ্ধ করছে নতুন এক দুর্যোগের বিরুদ্ধে, যার নাম করোনাভাইরাস। মহান আল্লাহ পাকের কি এক মহিমা যাকে চোখে দেখা যায় না; অথচ ভাইরাসটির আক্রমণে জ্ঞাতি- গোষ্ঠিসহ আশেপাশের মানুষের জীবন করে ফেলেছে বিপন্ন। এমতাবস্থায় নিম্ন – মধ্যবিত্ত পরিবারের মধ্যেই চলছে খাদ্য হাহাকার। সরকারি ত্রাণ সহ বিভিন্ন সংগঠন সক্রিয়ভাবে ত্রাণ বিতরণ করছে এই অসহায় পরিবারগুলোর মধ্যে। এমনিভাবে ‘বিরামপুর করোনা পরিস্থিতি’ ফেসবুক গ্রুপ ত্রাণ বিতরণ করেছে মোট ৩৫৬ টি পরিবারের মধ্যে। এসময়ে এধরনের মানবতার সেবক হিসেবে গ্রুপটির সঙ্গে জড়িত যাঁরা নিরলস শ্রম দিচ্ছেন সবাইকে ধন্যবাদ না দিয়ে পারছিনা। আমি ব্যক্তিগতভাবে ধন্যবাদ জানাচ্ছি তাদের এই মহতি কাজের জন্য। আসলে করোনাযুদ্ধে কারও ভূমিকাই ছোট নয়”।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*