বেনাপোলে মাদ্রাসার এতিম শিক্ষার্থীদের হাতে পবিত্র কোরআন তুলে দিলেন উদ্ভাবক মিজান

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মোঃ রাসেল ইসলাম,বেনাপোল প্রতিনিধি: যশোর জেলার শার্শা উপজেলার সদর ইউনিয়নের শ্যামলাগাছি গ্রামের বাসিন্দা,জাতীয় পর্যায়ে বেশ কয়েকটি ক্রেষ্ট এবং সন্মাননা সনদ প্রাপ্ত উদ্ভাবক মোঃ মিজানুর রহমান এতিম শিক্ষার্থীদের হাতে পবিত্র কোরআন এবং মাক্স তুলে দেন।
আজ ১২ জুন শুক্রবার জুম্মা’র নামাজের দিনে বেনাপোল পোর্টথানাধীন বেনাপোল সিনিয়র মাদ্রাসা সংলগ্ন বড় জামে মসজিদে এই পবিত্র বই এবং মাক্স গুলি বেনাপোলে অবস্থিত বিভিন্ন এতিমখানার ১০ জন এতিম শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দেওয়া হয়।
জুম্মা’র নামাজ শেষে ঐ মসজিদের ইমাম মাওঃ আব্দুল আজিজের সহযোগীতায় নিজে উপস্থিত থেকে উদ্ভাবক মিজান কোরআন শরীফ এবং মাক্স তুলে দেন এতিমদের হাতে।
উল্লেখ্য, কোভিড-১৯,করোনার কারনে সমগ্র দেশে লকডাউন চলাকালে অসহায় এবং দুঃস্থদের মাঝে প্রতিদিন রান্না করা খাবার বিতরন করে আসছেন উদ্ভাবক মিজান,এখনও তা চলমান রেখেছেন। এ ছাড়াও রাস্তায় পড়ে থাকা মানসিক বিকার গ্রস্থ(পাগল) এবং অবলা জন্তু কুকুর,বিড়াল ও পশুপক্ষীদেরও খাবারের ব্যবস্থা গ্রহন করে চলেছেন উদ্ভাবক মিজান।
এরই ধারাবাহিকতায় আজ তিনি নিজ অর্থায়নে এতিমদের মাঝে ১০টি পবিত্র কোরআন শরীফ এবং ১০টি মাক্স বিতরন করলেন। তার এই ধর্মীয় কাজে প্রশংসা করেছেন স্থানীয় ধর্মপ্রাণ মুসলমান।
কোরআন শরীফ তুলে দেওয়ার সময় স্থানীয় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে উদ্ভাবক মিজান বলেন, দেশের এই ক্রান্তি সময়ে আমি আমার সাধ্যমত মানুষের সেবা করে যাচ্ছি আল্লাহ পাক রাজি খুশি থাকলে আমার সামর্থ্য অনুযায়ী আগামী দিন গুলোতেও মানুষের মাঝে খাদ্য খাবার পরিবেশন এবং এর পাশাপাশি ধর্মীয় গ্রহন্ত পবিত্র কোরআন শরীফ মাস্ক বিতরন কার্যক্রম চালু রাখতে চেষ্টা করবো। এজন্য তিনি সকলের নিকট পবিত্র জুম্মার দিনে দোয়া কামনা করেছেন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*