মানুষকে নিরাপদে রাখায় তাদের ইবাদত

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মোসলেম উদ্দিন, বিশেষ প্রতিনিধি : আজ মুসলমাদের পবিত্র ঈদ-উল-আযহা। সকাল সাড়ে সাতটা এবং আটটায় প্রায় জামে মসজিদে অনুষ্ঠিত হলো কোরবানি ঈদের নামাজ। সকালে মুসলমানরা যাচ্ছে বিভিন্ন মসজিদে ঈদের নামাজ আদায় করতে। আর পুলিশ সদস্যারা বাবা-মা, স্ত্রী-সন্তান, স্বজনদের রেখে রাস্তায় রাস্তায় দাঁড়িয়ে নিরাপত্তা দিয়ে যাচ্ছেন জনগনকে। এমনি একটি দৃশ্য চোখে পড়ল হিলি মহিলা কলেজ সংলগ্ন জয়পুরহাটের পাঁচবিবির ভীমপুর বাসস্ট্যান্ডের রাস্তার উপর।

আজ কোরবানির ঈদ, সবার মাঝে বিরাজ করছে ঈদের আনন্দ। নিজের শখের পশুটিকে সৃষ্টিকর্তার সন্তুষ্টির লাভে করবে জবাই। রং বেরঙের পোশাক পড়ে সবাইকে জানাবে ঈদের শুভেচ্ছা। আর পুলিশ সদস্যদের দেখে মনে হচ্ছে তাদের কোন স্ত্রী-সন্তান বাবা-মা স্বজন নেই। তারা যেন মানুষের মাঝে খুঁজে পাচ্ছে ঈদের আমেজ। মানুষের নিরাপত্তার মাঝেই তাদের ইবাদত আর সৃষ্টিকর্তার নৈকট্য।

কথা হয় রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকা পুলিশ সদস্য কনেস্টবল সুমন মিয়ার সাথে, তিনি বলেন, সকাল থেকে এই স্থানে আবস্থান করছি। বাড়িতে বাবা-মা ভাই-বোন সবাই আছে। ঈদের ছুটি পায়নি, ঈদে বাড়িতে গেলে অনেক আনন্দ হতো। তবে তাতে আমার কোন কষ্ট নেই, এখানকার সবার মাঝে আমি ঈদের আনন্দ উপভোগ করতে পারছি। মহিলা কলেজের জামে মসজিদে সাড়ে সাতটার সময় গিয়ে ঈদের নামাজ আদায় করে আসলাম। কেউ আমাকে চেনে না তথাপি মনে হচ্ছে এরা সবাই আমার আপনজন। তাদের মাঝে খুঁজে পেলাম আমার ঈদের আনন্দ।

দাঁড়িয়ে থাকা একজন পুলিশ অফিসার এএসআই শ্রী জগন্নাথ চন্দ্র রায়ের সাথে কথা হয়, তিনি বলেন, আজ মুসলমাদের পবিত্র ঈদ। কর্তৃপক্ষের নির্দেশে সকাল থেকে এখানে নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করছি। মানুষের জান,মালের নিরাপত্তা দেওয়ায় আমাদের কাজ এবং এইটায় ইবাদত।

পাঁচবিবি থানার অফিসার ইনচার্জ মুনসুর রহমান জানান, আমরা ভোর ৫ টা থেকে উপজেলার বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে পুলিশি চেকপোস্ট বসিয়েছি। আজ পবিত্র ঈদ-উল-আযহা, মুসলমানরা যাতে সার্বিক নিরাপত্তার মাঝে তাদের ঈদ উদযাপন করতে পারে,সেই লক্ষে আমাদের নিরাপত্তার ব্যবস্থা।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*