রেক্টাল ক্যান্সার রোগে জয়পুরহাট র‌্যাব-৫ সদস্যের মৃত্যু

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মোসলেম উদ্দিন, বিশেষ প্রতিনিধি : জয়পুরহাট র‌্যাব-৫ এর সদস্য সুবেদার আনোয়ারুল ইসলাম রেক্টাল ক্যান্সার রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বরণ করেন। শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) ভোর রাতে রংপুর নিজ বাস ভবনে তিনি মারা যান।

জয়পুরহাট র‌্যাব-৫ জানান, কোম্পানীতে কর্মরত জেসিও-৮৯৫৮ নায়েব সুবেদার মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম, মাতৃ ইউনিট ৪৮ বিজিবি, সিলেট ব্যাটালিয়ন গত ১৪ জুলাই ২০২০ ইং তারিখে র‌্যাব-৫, রাজশাহীর সিপিসি-৩, জয়পুরহাট ক্যাম্পে অবস্থানকালীন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের মতামত অনুযায়ী তার শরীরে রেক্টাল ক্যান্সার সনাক্ত হয়। যা তার লিভারে ছড়িয়ে পড়ে এরপর তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে গত ১৫ জুলাই র‌্যাব সদর দপ্তরের অনুমতিক্রমে এয়ার উইং এর বিশেষ সহযোগিতায় র‌্যাবের হেলিকপ্টারযোগে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ, ঢাকায় প্রেরণ করা হয়। সেখানে আরও নিবিড় পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর তার শরীরে কেমোথেরাপি প্রয়োগ করা হলে তার শারীরিক অবস্থার অত্যন্ত অবনতি ঘটতে শুরু করে। এক পর্যায়ে চিকিৎসা অসম্পূর্ণ রেখেই বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকবৃন্দ তাকে জাতীয় ক্যান্সার ইন্সটিটিউট, মহাখালী, ঢাকায় প্রেরণের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন।

গত ২৪ আগস্ট সেখানে চিকিৎসা নিতে যাওয়ার পর থেকে শরীরে আর কোন কেমোথেরাপি দেওয়া সম্ভব হয়নি। পরে শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি হওয়ায় ১৯ সেপ্টেম্বর তিনি হাসপাতাল হতে ছুটি নিয়ে রংপুরে নিজ বাসভবনে প্রত্যাগমন করেন এবং তিনি রংপুরে একজন ক্যান্সার বিশেষজ্ঞের অধীনে চিকিৎসাধীন ছিলেন। গতকাল শনিবার ভোর রাতে তিনি তার নিজ বাসভবনে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

তাঁর এ অকাল মৃত্যুতে ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক, সকল পদবীর কর্মকর্তা এবং সকল র‌্যাব সদস্য অবর্ণনীয় শোকে মূহ্যমান। তাঁর মত একজন সাহসী ও সুদক্ষ র‌্যাব সদস্যের মৃত্যু অত্র ব্যাটালিয়ন, র‌্যাব ফোর্সেস এবং বিজিবির জন্য অত্যন্ত বেদনাদায়ক ও দুঃখজনক। তিনি ব্যক্তিগত জীবনে অত্যন্ত ধর্মপরায়ণ, সৎ ও পরোপকারী হিসেবে সুপরিচিত ছিলেন। অত্র ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক, সকল পদবীর কর্মকর্তা এবং সকল র‌্যাব সদস্যের পক্ষ থেকে তার শোক সন্তপ্ত পরিবারকে আন্তরিক সহানুভূতি ও গভীর সমবেদনা জানানো যাচ্ছে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*