হাইকোর্টের নির্দেশে বরিশালের চার শিশুকে অভিভাবকদের কাছে হস্তান্তর !

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

পজিটিভ বিডি নিউজ ২৪ ডটকম (ঢাকা) : ধর্ষণের অভিযোগে আনা মামলায় বরিশাল আদালতে জামিন নাকচের পর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে পাঠানো চার শিশুকে  হাইকোর্টের নির্দেশনা অনুযায়ী অভিভাবকদের কাছে  নিজ নিজ বাড়ীতে হস্তান্তর করা হয়েছে।
বরিশালের বাকেরগঞ্জের চার শিশুকে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতের মধ্যে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত মাইক্রোবাসে করে অভিভাবকদের কাছে পৌঁছে দিতে যশোরের জেলা প্রশাসককে (ডিসি) নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। সে অনুযায়ী তাদের পৌঁছানোর ব্যবস্থা নেয়া হয়। শুক্রবার (আজ) সকাল পৌনে ৮টার দিকে যশোর থেকে তাদের বরিশালের বাকেরগঞ্জে অভিভাবকদের কাছে পৌঁছে দেয়া হয়েছে।
সুপ্রিমকোর্টের মুখপাত্র ও বিশেষ কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাইফুর রহমান শিশুদের পৌঁছে দিয়ে স্থানীয় প্রশাসনকে অবহিত করেছেন বলে গনমাধ্যমে নিশ্চিত করেছেন।
শুক্রবার ৯ অক্টোবর সকাল ৭টা ৫০ মিনিটে একটি মাইক্রোবাস যোগে ওই ৪ শিশুকে বাকেরগঞ্জের রুনশী গ্রামে নিয়ে আসেন প্রশাসনের কর্মকর্তারা।এ সময় সেখানে হৃদয় বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়। গাড়ি থেকে নামার সঙ্গে সঙ্গে শিশুদের বুকে টেনে নিয়ে স্বজনরা কান্নায় ভেঙে পড়েন। সে সময় সেখানে উপস্থিত প্রতিবেশী স্বজনদেরও আবেগাপ্লুত দেখা যায়।
স্বজনদের হাতে ওই ৪ শিশুকে বুঝিয়ে দেয়ার সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাধবী রায়, জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের প্রবেশন অফিসার সাজ্জাদ পারভেজ, বাকেরগঞ্জ থানার ওসি আবুল কালামসহ প্রশাসনের স্থানীয় কর্মকর্তারা।
বিচারপতি মো: মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মহি উদ্দিন শামীম সমন্বয়ে গঠিত একটি হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চ বৃহস্পতিবার রাতে এ আদেশ দেন বলে গনমাধ্যমকে জানান সুপ্রিমকোর্টের মুখপাত্র ও বিশেষ কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাইফুর রহমান।
ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশুর জামিন নাকচ করে শিশু উন্নয়ন কেন্দ্র পাঠানোর আদেশ দেয় বরিশালের একটি আদালত। ৬ বা ৭ বয়সের এ শিশুদের মামলা ও জামিন সংক্রান্ত ঘটনা নিয়ে বেসরকারি টিভি চ্যানেল সময় টিভিতে প্রচারিত প্রতিবেদন আমলে নিয়ে এ আদেশ দেন আদালত।
সুপ্রিমকোর্ট মুখপাত্র জানান, হাইকোর্টের এই ডিভিশন বেঞ্চ গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ৯ টায় বরিশালের শিশু আদালতের বিচারক’কে ৪ জন শিশুর জামিন নিষ্পত্তির আদেশ প্রদান করেন। এ বিষয়ে অবহিত হয়ে বরিশালের শিশু আদালতের বিচারক এই ৪ জন শিশুর জামিন মঞ্জুর করেছেন।
তিনি জানান, যশোরের জেলা প্রশাসককে যশোর পুলেরহাট শিশু উন্নয়ন কেন্দ্র হতে এই ৪ শিশুকে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত মাইক্রোবাসে করে রাতের মধ্যেই তাদের অভিভাবকদের নিকট পৌঁছে দেয়ার ব্যবস্থা গ্রহণ করতে আদেশ প্রদান করেন হাইকোর্ট। সে অনুযায়ী শিশুদের পৌঁছে দেয়া হয়েছে।
আদেশে বরিশালের সংশ্লিষ্ট সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটকে আগামী রোববার ১১ অক্টোবর বেলা সাড়ে ১১ টায় সশরীরে হাইকোর্টের এ বেঞ্চে উপস্থিত হওয়ার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
এছাড়াও বাকেরগঞ্জ থানার ওসিকে এই ৪ শিশুকে তাদের অভিভাবকসহ ওইদিন সশরীরে উপস্থিত করার আদেশ প্রদান করা হয়েছে।
এছাড়াও বরিশাল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিচালককে আগামী রোববার ১১ অক্টোবর সকাল সাড়ে ১০ টার মধ্যে মধ্যে ভিকটিম শিশুর ধর্ষণ সংক্রান্ত মেডিকেল রিপোর্ট হাইকোর্টের এ বেঞ্চে দাখিলের আদেশ প্রদান করা হয়েছে। আদেশে আরো বলা হয়, রাতের মধ্যে শিশুদেরকে তাদের অভিভাবকদের নিকট পৌঁছে দিয়ে বাকেরগঞ্জের ওসি কাল সকাল ১০টার মধ্যে টেলিফোনে সুপ্রিমকোর্টের হাইকোর্ট ডিভিশনে বিশেষ কর্মকর্তাকে অবহিত করবেন। সে অনুযায়ী অবহিত করা হয়েছে।
আদালতের নির্দেশে সুপ্রিমকোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের বিশেষ কর্মকর্তা ৪ শিশুর বিষয়ে দেয়া নির্দেশনা
বরিশালের শিশু আদালতের বিচারক, জেলা প্রশাসক,পরিচালক, বরিশাল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল ,চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট, সংশ্লিষ্ট সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট, বাকেরগঞ্জের ওসিকে টেলিফোনে অবগত করেন। এরপর পরই সংশ্লিষ্টরা আদেশ বাস্তবায়নে পদক্ষেপ নেন।
গত মঙ্গলবার ৬ অক্টোবর বাকেরগঞ্জ থানায় ৬ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে তার বাবা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন। মামলার অভিযোগে বলা হয়, মামলার আসামিরা ওই শিশুটির খেলারসাথী। রোববার ৪ অক্টোবর বিকেলে বাগানে খেলার সময় তাকে তিন আসামির সহযোগিতায় এক আসামি ধর্ষণ করে। মামলার আসামিদের একজনের বয়স ১১ ও বাকিদের বয়স ১০ বছর দেখানা হয়েছে। গনমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয় শিশুদের বয়স আরো কম।
শিশুদের অভিভাবকদের দাবী পূর্ব শত্রুতার জেরে মামলাটি করা হয়েছে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*