হিলিতে আমদানি কারকরা গড়ে তুলেছে পেঁয়াজের মজুদ

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মোসলেম উদ্দিন, হিলি (দিনাজপুর) প্রতিনিধি : দিনাজপুরের হিলি বন্দরের পেয়াজ আমদানি কারকরা বন্দরের বিভিন্ন বে সরকারী গুদামে পেয়াজ মজুদ করে রেখে পেয়াজের কৃত্রিম সংকটের সৃষ্টি সহ দাম বৃদ্ধি করছে।

ব্যবসায়ীরা পাইকারী পেয়াজ ক্রয় বরতে এসে রিক্ত হস্তে ফিরে যাচ্ছে। গুদামে পিয়াজ মজুদ থাকার পরও বিক্রয় করছেন না আমদানিকারকরা। ব্যবসায়ী মহলরা মজুদদার পেয়াজ আমদানিকারকদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য র‌্যাব সহ প্রশাসনের উদ্ধতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

হিলি স্থলবন্দর দিয়ে বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ হয়ে গেছে। একারণে গতকাল রোববার বিকেল পর্যন্ত ভারতীয় পেঁয়াজ বোঝাই ১৪টি ট্রাক বন্দরে প্রবেশের পর আর কোনো ট্রাক প্রবেশ করেনি। এই খবরে বন্দরের মোকামে পাইকারিতে পেঁয়াজের দাম কেজিতে ২৫ থেকে ৩০ টাকা বেড়ে গেছে।

বন্দরের ব্যবসায়ী মোবারক হোসেন জানান, ভারতের হিলির স্থানীয় ব্যবসায়ীরা আমাদের ফোন করে জানিয়েছেন ভারতে ব্যাপক ভাবে বন্যা দেখা দিয়েছে। সেখানে পেঁয়াজের সঙ্কট হওয়ায় দাম কয়েকগুন বেড়ে গেছে। এতে ভারত সরকার গতকাল রোববার বিকেলে এক নোটিফিকেশনের মাধ্যমে কাষ্টমস কর্তৃপক্ষসহ সংশ্লিষ্টদের বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি না করার জন্য আদেশ জারি করেছে। এরফলে বিকেল ৪টার পর বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ১৪টি ট্রাক বন্দরের গেট দিয়ে প্রবেশ করে।  শতাধিক ট্রাক প্রবেশের অপেক্ষায় রয়েছে ওপার কাস্টমস এলাকায়।

তিনি আরও জানান, প্রায় এক মাস আগে ভারত পেঁয়াজের রপ্তানি মুল্য ২৫০-৩০০ মার্কিন ডলার থেকে ৮৫২ ডলার নির্ধারণ করে। এরপর থেকে আমরা ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি করছি। রোববার বিকেলে এই আদেশ পাওয়ার পর ব্যবসায়ীরা হতাশ হয়ে পড়েছে। কারণ অনেক ব্যবসায়ীর এলসি করা আছে, তারা আর্থিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবেন।

এদিকে খোজ নিয়ে জানাগেছে, রোববার বিকেলে ১৪টি ভারতীয় ট্রাকে ২৬৮ মেট্রিকটন পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে। আর কোনো ট্রাক বন্দরে প্রবেশ করেনি। শনিবার ১৯টি ট্রাকে ৪৩৭ মেট্রিক টন পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে। ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধের খবরে বন্দরের পানামা পোর্টে পাইকারিতে কেজি প্রতি বিক্রি হচ্ছে ৭৫ টাকায়। ফলে কেজিতে দাম বেড়েছে ২৫ টাকা।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*