হিলিতে এখনও দুস্থ্যদের মাঝে পুষ্টি সপ্তাহের খাদ্য বিতরণ করা হয়নি

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মোসলেম উদ্দিন, বিশেষ প্রতিনিধি : দিনাজপুরের হাকিমপুর (হিলি) উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ উদযাপনে আসা বরাদ্দ করোনা পরিস্থিতিতে কর্মহীন দুস্থ্য ও পুষ্টির অভাব জনিত মানুষদের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণের মাধ্যমে ব্যয় করার কথা ছিল। কিন্তু গত ৩দিন পেরিয়ে গেলেও এখনো তা বিতরণ করা হয়নি। গত ২৩-২৯ এপ্রিল ছিল জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অফিস সহকারী আবু তালেব জানান, জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ উদযাপন উপলক্ষে জাতীয় পুষ্টি প্রতিষ্ঠান মহাখালী, ঢাকা থেকে এবার গত ২৫ এপ্রিল ১ লক্ষ ২৮ হাজার টাকা বরাদ্দ পাওয়া যায়। বরাদ্দের টাকা দিয়ে ২৩-২৯ এপ্রিল জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ চলাকালে বৈশ্বিক করোনা পরিস্থিতিতে কর্মহীন হয়ে পড়া দুস্থ্য ও পুষ্টির অভাব জনিত মানুষদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী ত্রয় করে বিতরণের কথা বলা হয়। সেই অনুযায়ি এসব মানুষদের প্রতিজন পাবেন ১০ কেজি চাল, ১ লিটার ফরটিফাইড তেল, ১ কেজি ডাল, ১ কেজি পেঁয়াজ, ১ কেজি আয়োডিন যুক্ত লবণ ও ৫ কেজি আলু।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (ইউএইচএন্ডএফপিও) ডা. তৌহিদ আল হাসান জানান, করোনা ভাইরাসের কারণে হাকিমপুরে বাহির থেকে আসা ব্যক্তিদের তালিকা তৈরী ও করোনার নমুনা সংগ্রহের কাজে আমরা সবাই ব্যস্ত ছিলাম। ইতোমধ্যে দুইজনের শরীরে করোনার উপস্থিতি পাওয়া গেছে। দ্রæত ছড়াতে না পারে সেজন্য ব্যস্ত থাকতে হচ্ছে। তাই সঠিক সময়ে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা যায়নি। আশা করি দুই একদিনের মধ্যে বিতরণ করা হবে।

হাকিমপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) ও জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ উদযাপন কমিটির সভাপতি আব্দুর রাফিউল আলম জানান, ইউনিয়ন কমিউনিটি ক্লিনিকের স্বাস্থ্য সহকারীদের মাধ্যমে এলাকা ভিত্তিক তালিকা তৈরীর কাজ চলছে। যারা পুষ্টিহীনতায় রয়েছে এবং যারা এখনো পর্যন্ত কোনো খাদ্য সামগ্রী পায়নি মুলত সেসব মানুষদের মধ্যে এই বরাদ্দের টাকা দিয়ে খাদ্য সামগ্রী কিনে দেওয়া হবে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*