হিলি বন্দরে বেড়েছে আদা রসুন পেঁয়াজ ও শুকনা মরিচের দাম

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মোসলেম উদ্দিন, বিশেষ প্রতিনিধি : সপ্তাহেরর ব্যবধানে অনেকটাই দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরে বেড়েছে আদা, রসুন, পেঁয়াজ ও শুকনা মরিচের দাম। প্রকার ভেদে পাইকারী বাজারে আদার ছিলো ১৪০ টাকা সপ্তাহের ব্যবধানে তা বেড়ে এখন ২০০ টাকা, রসুন ছিলো ৬০ টাকা তা বেড়ে ১০০ টাকা, পেঁয়াজের দাম ছিলো ৪০ টাকা তা এখন ৪৮ টাকা, শুকনা মরিচ ছিলো ২০০ টাকা বৃদ্ধি পেয়ে তা এখন পাইকারী বাজারে বিক্রি হচ্ছে ২৬০ টাকা কেজি দরে। ব্যবসায়ীরা বলছে আমদানি কম হওয়ায় এই সব পণ্যের দাম বৃদ্ধি পেয়েছ। হঠাৎ দাম বাড়ায় বিপাকে পরছে সাধারণ ক্রেতারা।

একজন খুচরা ব্যবসায়ী মিঠু হোসেন  বলেন, কয়েকদিন আগে আদা,রসুন, পেঁয়াজ ও শুকনা মরিচের দাম অনেকটায় কম ছিলো। এক সপ্তাহ আগে আদা ১৪০ টাকা কিনে ১৬০ টাকা দরে খুচরা বিক্রি করেছি, আজ ২০০ থেকে ২২০ টাকা ক্রয় করে ২৫০ থেকে ২৬০ টাকা দরে বিক্রি করছি, রসুন ৬০ টাকা কিনে ৮০ টাকা বিক্রি এখন তা ১০০ টাকা পাইকারী কিনে ১২০ টাকা দরে বিক্রয় করতে হচ্ছে, পেঁয়াজ ৩৮ থেকে ৪০ টাকা কিনে ৪২ থেকে ৪৫ টাকা বিক্রি এবং বর্তমান বাজার ৪৮ টাকা দরে ক্রয় করে ৫০ টাকা খুচরা দরে বিক্রি করেছি, সপ্তাহ আগে শুকনা মরিচ ২০০ টাকা দামে কিনে তা বিক্রি করেছি ২৩০ টাকা,তা বৃদ্ধি পেয়ে আজ ২৬০ টাকা কেজি দরে পাইকারী ক্রয় করে ২৮০ থেকে ৩০০ টাকা কেজি দরে বাজারে বিক্রয় করছি। তিনি আরো বলেন হঠাৎ করে দাম বাড়ায় সাধারণ ক্রেতারা বিপাকে পড়ছে।

একজন সাধারণ ক্রেতা বাজারে এসব পণ্য কিনতে এসে  জানান, কয়েকদিন আগে আদা,রসুন, পেঁয়াজ ও শুকনো মরিচের দাম নাগালে মধ্যে ছিলো। আজ বাজারে এসে বিপাকে পড়ে গেলাম। করোনার প্রাদুর্ভাবেও এসব জিনিসের দাম বাড়েনি। আজ হঠাৎ দাম বেশি বলছে দোকানীরা। হিসাব করে যে টাকা নিয়ে এসেছি তাদিয়ে তালিকা অনুযায়ী বাজার খরচ পুরন হচ্ছে না।

পণ্যের দাম বৃদ্ধির কারণ জানতে চাইলে, হিলি বাজারের পাইকারী ব্যবসায়ী ফেরদৌস রহমান  বলেন, আদা, রসুন, পেঁয়াজ ও শুকনা মরিচের আমদানি কম হওয়ায় দাম বেড়েছে।

তিনি আরও জানান, করোনার সতর্কতা জাড়ি এবং দেশের বিভিন্ন জেলায় লকডাউন ঘোষণার পর যে সব এলাকা থেকে এসব পণ্য আমদানি হতো, সে সব স্থানে কৃষকরা এই সব পণ্য বাজারজাত করতে পারছে না। তা ছাড়াও লকডাউনেরর কারনে পণ্যবাহী ট্রাকগুলো রাস্তায় ঠিকমত বাহির হতে পারছে না।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*